মধুসূদন দত্ত ভারত ও বাংলাদেশের মহাকবি – ভারতীয় হাইকমিশনার

আব্দুল্লাহ আল ফুয়াদ, কেশবপুর (যশোর) ॥ বাংলাদেশে ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা বলেন, মাইকেল মধুসূদন দত্ত ভারত ও বাংলাদেশের মহাকবি। তাঁর অধিকাংশ লেখনীতে অসাম্প্রদায়িক চেতনার দর্শন ফুটে উঠেছে। এই অসাম্প্রদায়িক চেতনার দর্শনই ভারত ও বাংলাদেশের মানুষকে উজ্জীবিত করে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে কেশবপুরের সাগরদাঁড়ি মহাকবি মাইকেল মাইকেল মধুসূদন দত্তের পৈত্রিক বাড়ি পরিদর্শণ কালে এ কথা বলেন তিনি। রোহিঙ্গা বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বাংলাদেশ থেকে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে হবে এবং রোহিঙ্গাদেরও ফিরে যেতে হবে। সাড়ে ৬ লাখ রোহিঙ্গা আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ মানবতার পরিচয় দিয়েছেন। বাংলাদেশ রোহিঙ্গাদের আশ্রয় ও খাদ্যের যে ব্যবস্থা করেছেন সেটা দুঃসাধ্য ব্যাপার।  বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের জন্য ভারতও সহযোগিতা করেছেন।

সাগরদাঁড়িতে সন্ধ্যা পর্যন্ত তিনি মধুপল্লী, মিউজিয়াম, কপোতাক্ষ নদ, বিদায় ঘাট ঘুরে ঘুরে দেখেন। এ সময় তাঁর সাথে ছিলেন যশোর-৫ (মণিরামপুর) আসনের সংসদ সদস্য স্বপন কুমার ভট্টাচার্য, ভারতীয় রাষ্ট্রদূতের রাজনৈতিক সচিব নবনিতা চক্রবর্তী, দীপেনজন রায়, অরুনধূতি দাস, কেশবপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এইচ এম আমীর হোসেন, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) কবির হোসেন, কেশবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ. এম আনোয়ার হোসেন, মধুপল্লীর কাস্টোডিয়ান মহিদুল ইসলাম, মধুসূদন গবেষক ও কবি খসরু পারভেজ, সাগরদাঁড়ি ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান কাজী মুস্তাফিজুল ইসলাম মুক্ত প্রমূখ।

You May Also Like