ভবদহ সমস্যা নিরসনের দাবিতে যশোরে সাউথ এশিয়ান পিপলস ফোরাম কনফারেন্স অনুষ্ঠিত

আব্দুর রহিম রানা, যশোর ||

নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, ‘জনগনের সমর্থন ছাড়া কোন কাজ চূড়ান্ত সম্ভব হয় না। বঙ্গবন্ধু মানুষের সমর্থন, ভালবাসা নিয়েই দেশ স্বাধীন করেছেন। বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাও এদেশের জনগনের ভালবাসা নিয়েই আজ রাষ্ট্র ক্ষমতায় রয়েছেন। জনগনকে সাথে নিয়েই আজ দেশ উন্নয়নের মহাসড়কে অবস্থান করছে। আপনারা এলাকার জনগণ চাইলে ভবদহের সমস্যা অবশ্যই সমাধান সম্ভব। এটি একটি জাতীয় সমস্যা। টিআরএম-এর বাস্তবায়ন বাদ দিয়ে বিকল্প হিসেবে কোন পদ্ধতিতে এর সমাধান করা সম্ভব নয়। আপনারা চাইলে টিআরএম প্রকল্পের জন্য আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে সুপারিশ করতে পারি। আর যদি এটিকে নিয়ে ব্যবসা করতে চান, সে ক্ষেত্রে যুগের পর যুগ এভাবেই দুঃখ-দুর্দশা থেকেই যাবে।’

গতকাল শুক্রবার সকালে যশোরের ভবদহ সমস্যা বিষয় নিয়ে সাউথ এশিয়ান পিপলস্ কনফারেন্সে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ভবদহ কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত এ কনফারেন্সে সভাপতিত্ব করেন কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল মতলেব সরদার। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মণিরামপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন লাভলু, কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এইচ এম আমির হোসেন, এসএপিএফ বাংলাদেশ চ্যাপ্টারের সভাপতি লাভলী ইয়াসমিন, বেসরকারী সংস্থা লাইফ এর সি ইও, সাইদুল আহসান রিয়াল, ভারতীয় প্রতিনিধি মানিক সমাজদার, নেপালিয়ান প্রতিনিধি সুন্দুর সিনি, কলেজের সভাপতি বিষ্ণু দত্ত প্রমূখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে নৌ-মন্ত্রী আরো বলেন, ‘বিএনপি জামায়াত এদেশে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থেকে জনগনের জন্য কিছুই দিতে পারেনি। বেগম খালেদা জিয়া প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে প্রকৃত ডিলারদের বাদ দিয়ে তার দলীয় লোকদের হাতে সার বন্টনের দায়িত্ব তুলে দেন। আর এজন্য সার না পেয়ে জনগন আন্দোলনমুখী হয়ে উঠে। পুলিশ ওই সময় সারের দাবিতে আন্দোলনকারি ১৭ কৃষককে গুলি করে হত্যা করেছে। বিদ্যুতের দাবীতে কানসাটে দেশের জঘন্যতম ঘটনা ঘটিয়েছে। বিদ্যুতের দাবীতে আন্দোলনকারি এদেশের সাধারন মানুষকে গুলি করে হত্যা করেছে। বর্তমান সরকারের সময় এ দেশের জনগনকে সার, বিদ্যুত নিয়ে কান্নাকাটি করতে দেখা যায়নি। বর্তমান সরকারের উন্নয়ন হিসেবে ২০০৯ সাল থেকে ২০০১৩ সালের মধ্যে ১৪টি ড্রেজার মেশিন নতুন করে করা হয়েছে। জোট সরকার আমলে দেশের ২৪ হাজার কিলোমিটার নদীর মধ্যে ২০ হাজার কিলোমিটার নদী নাব্যতা হারিয়ে ফেলেছিলো। যা বর্তমান সরকার আগের অবস্থানে ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছে। বিএনপি ২০১৫ সালে একাধারে ১৫ দিন আন্দোলনের নামে যে তান্ডব চালিয়েছে তা এ দেশের জনগন বুঝে নিয়েছে বিএনপি ক্ষমতায় এলে তারা এদেশে গণহত্যা চালাবে। যারা ৭১’র দেশ বিরোধী ভূমিকায় ছিলো তাদের হাতে এদেশের জাতীয় পতাকা তুলে দিয়েছিল বিএনপি। যে কারনে জনগন আর এখন তাদের ক্ষমতায় দেখতে চাইনা বলে তারা হতাশ হয়ে পড়েছে।

You May Also Like