‘শেখ হাসিনার সালাম নিন-নৌকা মার্কায় ভোট দিন’ শ্লোগানে কেশবপুরে মটর সাইকেল শোডাউন

আব্দুল্লাহ আল ফুয়াদ ॥

আসন্ন সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে শনিবার সকালে কেশবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ প্রায় তিন হাজার মটর সাইকেলের এক বিশাল শোডাউন করেছে। “শেখ হাসিনার সালাম নিন-নৌকা মার্কায় ভোট দিন” এ শ্লোগান দিয়ে স্থানীয় সাংসদ জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ইসমাত আরা সাদেকের পক্ষে এই মটর সাইকেলের বহর কেশবপুর কলেজ থেকে বের হয়ে উপজেলাব্যাপী প্রদক্ষিণ করে।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, আসন্ন নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের জয় নিশ্চিত করতে প্রতিমন্ত্রীর নির্দেশে উপজেলা ব্যাপী মটর সাইকেল শোডাউনের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

শনিবার সকাল থেকে উপজেলার এগারটি ইউনিয়ন ও পৌরসভার নেতাকর্মীরা মটর সাইকেল নিয়ে শহরের কেশবপুর ডিগ্রী কলেজ মাঠে জড়ো হতে থাকে। সকাল এগারটার মধ্যে কলেজ মাঠ নেতাকর্মীদের আগমনে কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়। প্রতিটি মটর সাইকেলে দুজন বসা। তারা নিজ ইউনিয়রে ব্যানারে পৃথক পৃথকভাবে সারিবদ্ধ হয়ে দাঁড়িয়ে যায়। সবার মাথায় নৌকা সম্বলিত প্লাকার্ড বাঁধা। বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবিসহ তাতে লেখা নৌকা মার্কায় ভোট দিন। কারো কারো গায়ে ‘‘শেখ হাসিনা সালাম নিন নৌকা মার্কায় ভোট দিন” ছাপ দেয়া টিশার্ট পরা। হাতে ফেস্টুন তাতে ইউনিয়নের নাম ও নৌকায় ভোট দিন লেখা। এই শোডাউনে প্রায় ছয় হাজারের বেশী লোক অংশ নিয়েছে।

প্রায় তিন হাজার মটর সাইকেল শোডাউনের নেতৃত্ব দেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি তপন কুমার ঘোষ, নোমান সাদেক, জেলা পরিষদের সদস্য হাসান সাদেক, সোহরাব হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক গৌতম রায়, দপ্তর সম্পাদক মফিজুর রহমান মফিজ, যুবলীগের আহবায়ক শহিদুজ্জামান শহীদ, আবু সাঈদ লাভলু, ছাত্রলীগের খন্দকারসহ উপজেলার সকল নেতৃবৃৃৃৃন্দ।

দীর্ঘ প্রায় দশ কিলোমিটার লম্বা স্মরণকালের সাড়া জাগানো এই মটর সাইকেল বহর শুরুর আগে কলেজ মাঠে এক সংক্ষিপ্ত জনসভায় উপজেলা আওয়ামী লীগে সহসভাপতি তপন কুমার ঘোষের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, প্রতিমন্ত্রীর মুখপাত্র চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ, এ্যাভোকেট রফিকুল ইসলাম পিটু, আজফার নোমান সাদেক, চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান, জেলা পরিষদের সদস্য হাসান সাদেক, সোহরাব হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক গৌতম রায়, দপ্তর সম্পাদক মফিজুর রহমান মফিজ, যুবলীগের আহবায়ক ও প্যানেল মেয়র শহিদুজ্জামান শহীদ, যুগ্ম আহবায়ক আবু সাঈদ লাভলু, ছাত্রলীগের খন্দকার আজিজুর রহমান, উপজেলা বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদের আহবায়ক সবুজ হোসেন নিরব প্রমুখ।

You May Also Like