যশোরে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

আব্দুর রহিম রানা, যশোর ||

যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে আয়শা খাতুন খুকি (৩০) নামে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার দিনগত গভীর রাতে হাসপাতালের মহিলা মেডিসিন ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে। খুকি বেনাপোল থানার গয়ড়া গ্রামের গোলাম হোসেনের স্ত্রী ও একই থানার আমড়াখালি গ্রামের মৃত নুরুল আমিনের মেয়ে।

খুকির মৃত্যুর পর তার স্বামী গোলাম হোসেন লাশ হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যান। তবে শনিবার সকালে কোতোয়ালি পুলিশ তাকে আটক করে বেনাপোল পোর্ট থানায় সোপর্দ করেছে। মৃতের ভাই রিয়াজুলসহ স্বজনদের অভিযোগ, স্বামী গোলাম হোসেন শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে স্ত্রী খুকিকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারপিট করে মুখে জোর করে বিষ ঢেলে দিয়েছে। পরে বিষপান করেছে বলে খুকিকে রাতে হাসপাতালে ভর্তি করেন। কিন্তু মৃত্যু পরে স্বামী হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান।

মৃতের ভাই রিয়াজুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, খুকির আগের প্রথমে আমড়াখালী গ্রামের গোলাম রাব্বানীর সাথে বিয়ে হয়। ওই ঘরে দুই ছেলেমেয়ে আছে। ছেলে মেয়ে রেখে খুকি প্রথম স্বামীকে ১০/১৫দিন আগে তালাক দিয়ে দ্বিতীয়বার গোলাম হোসেনকে বিয়ে করেন। এরপর শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে গোলযোগ হয়। তখন স্বামী গোলাম হোসেন স্ত্রী খুকিকে মারপিট করে মুখে বিষ ঢেলে দেন। পরে হাসপাতালে ভর্তি করলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় খুকির মৃত্যু হলে স্বামী লাশ ফেলে রেখে পালিয়ে যান।

যশোর কোতোয়ালি থানার এস আই শাহাজামাল বলেন, খুকির মৃত্যুর ঘটনায় থানায় প্রাথমিকভাবে একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। লাশের শরীরে বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। স্বজনদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে স্বামীকে আটকের পরে বেনাপোল বন্দর থানায় সোপার্দ করা হয়েছে। বিষয়টি হত্যা না আত্মহত্যা ময়নাতদন্ত না পাওয়া পর্যন্ত সঠিকভাবে বলা যাচ্ছে না।

You May Also Like