কেশবপুরে গণপিটুনিতে গরু চোরের মৃত্যু

কেশবপুর নিউজ ডেস্ক ||

যশোরের কেশবপুরে গনধোলাইয়ের শিকার হয়ে এক গরু চোরের মৃত্যু হয়েছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেছে।

থানা পুলিশ ও স্থানীয়দের সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ভান্ডারখোলা এলাকায় প্রতি রাতেই বিভিন্ন বাড়িতে চুরি সংঘঠিত হচ্ছিল। সম্প্রতি চুরি ঠেকাতে এলাকাবাসি একতাবদ্ধ হয়ে প্রতিরাতেই পাহারা দিয়ে আসছিলো। সোমবার রাতে হাড়িয়াঘোপ গ্রামের আব্দুস সোবহানের বাড়িতে গরু চোরের উপস্থিতি টের পেয়ে সংঘবদ্ধ এলাকাবাসি তাকে ধাওয়া দিলে পালিয়ে যাওয়ার সময় সে টিউবওয়েলে বেধে পড়ে যায়। এ সময় এলাকাবাসীর গণপিটুনিতে তার মৃত্যু হয়।

নিহত চোর উপজেলার নতুন মুলগ্রামের মশিয়ার রহমান সরদারের ছেলে আনিন নাঈম। খবর পেয়ে কেশবপুর থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে।

এ বিষয়ে কেশবপুর থানার উপপিরদর্শক প্রসেনজিৎ জানান, গনপিটুনিতে এক চোরের মৃত্যু হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নিহতের পরিবারের অভিযোগ, মেয়েলী ঘটনাকে কেন্দ্র করে পূর্বপরিকল্পিত ভাবে আনিন নাঈমকে হত্যা করা হয়েছে। হত্যার ঘটনাটি ভিন্নখাতে  প্রবাহিত করতে এলাকাবাসি তাঁর ছেলেকে চোর সাজিয়েছে ।

You May Also Like