কেশবপুরে জীবনের নিরাপত্তার দাবিতে এক অসহায় পরিবারের সংবাদ সম্মেলন

কেশবপুর নিউজ ডেস্ক ||

কেশবপুরে জীবনের নিরাপত্তার দাবিতে কেশবপুর উপজেলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছে এক অসহায় পরিবার। ১৬ মে বৃহস্পতিবার বিকেলে সংবাদ সম্মেলনে ভালুকঘর গ্রামের মৃত জামাল উদ্দীনের পূত্র ইমাম উদ্দীন দপ্তরী বলেন, আমি ও আমার পাশে ছোট বোন পৈত্রিক বসত ভিটায় বসবাস করি। আমার তিন ছেলে ও দুই মেয়ে বড় হওয়ার কারণে ঘর ভেঙ্গে বাড়তি নতুন ঘর নির্মাণের উদ্যোগে নিলে পাশের প্রতিবেশী আবু দপ্তরীর ছেলে গ্রামীণ ব্যাংকে কর্মরত গোলাম মোস্তফার  কুনজর পড়ে আমাদের ভিটার উপর। যত টাকা লাগুক না কেন আমাদের ভিটা ছাড়া করার জন্য নাশকতা মামলা-সহ একাধিক মামলার আসামী ইউপি সদস্য আজিজুর রহমানের সাথে মোটা অংকের টাকা লেনদেন করে। তার সহযোগিতা করছে গোলাম মোস্তফার ছোট চাচা হায়দার আলী দপ্তরী। টাকা পেয়ে আজিজুর রহমান আমার বোনকে ভুল বুঝিয়ে নির্মাণ কাজে বাধা সৃষ্টি করে। যেটি তাৎক্ষণিক ভাবে লিখিত আকারে থানা পুলিশকে জানানো হলে তারা আরো বেপরোয়া হয়ে ওঠে। তারা সংঘবদ্ধভাবে আমার বাড়ীতে ঢুকে মারপিট করে এবং জীবনে বেঁচে থাকতে হলে এলাকা ছেড়ে চলে যেতে বলে।আহতাবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হয়ে থানায় অভিযোগ করলে থানা পুলিশকে ভুল বুঝিয়ে মিমাংসার দায়িত্ব নেন ইউপি সদস্য আজিজুর রহমান। এরপর ১৫/২০ দিন ধরে অব্যাহত ভাবে বাড়িতে যেয়ে আজিজুর ও তার লোকজন আমাদের মারধর সহ প্রণ নাশের হুমকী দিতে থাকে। এক পর্যায়ে গত ১০ মে তারা আমার বাড়ির সীমানা প্রাচীর ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়। আমি আমার পরিবার নিয়ে প্রাণভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছি।

এদিকে গত ১৩ মে আমার অশিক্ষিত মাকে বাদী করে ভরনপোষণ না দেওয়া ও মারপিটের মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে মামলা করিয়ে শাক দিয়ে মাছ ঢাকার চেষ্টা চালাচ্ছে। সংবাদ সম্মেলনে মাধ্যমে ইমাম উদ্দীন দপ্তরী সরকারে নিকট তাঁর পরিবারের জীবনের নিরাপত্তার দাবী জানান।

You May Also Like