অসম বয়সের বিয়ে! ইচ্ছার বিরুদ্ধে বিয়ে দেয়ায় কেশবপুরে নববধূর আত্মহত্যা

কেশবপুর নিউজ ডেস্ক ||
যশোরের  কেশবপুরে ইচ্ছার বিরুদ্ধে বিয়ে দেয়ায় সুমি খাতুন (২০) নামে এক নববধু বিষপানে আত্নহত্যা করেছে। এ ঘটনায় কেশবপুর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

জানা গেছে, ৩ মাস আগে কেশবপুর উপজেলার ০৮ নং সুফলাকাটি ইউনিয়নের ০৯ নং ওয়ার্ড কাঁকবাধাল গ্রামের মেম্বর আজিজুর রহমান পার্শবর্তী মনিরামপুর উপজেলার ভরতপুর গ্রামের ইউনুস আলী সরদারের মেয়ে মনিরামপুর সরকারী ডিগ্রী কলেজের ছাত্রী সুমি খাতুনকে বিয়ে করে। স্বামীর বয়স পঞ্চশের কাছে হওয়ায় বিয়ের শুরু থেকেই সুমির সাথে মেম্বর আজিজুরের মনদ্বন্দ্ব লেগেই থাকত। মেয়ের ইচ্ছার বিরুদ্ধে তার বাবা-মা এক প্রকার জোর জবরদস্তি করে তাকে ঐ বয়ষ্ক স্বামীর সাথে সংসার করতে বাধ্য করে।

দিনের পর দিন সুমি তার মনের সাথে যুদ্ধ করে নিজের  ইচ্ছে শক্তির কাছে পরাজয় বরন করে অবশেষে মৃত্যুর পথ বেছে নেন। মঙ্গলবার সকালে সকলের অজান্তে বিষপান পান করলে কেশবপুর হাসপাতালে আনার সময় পতিমধ্যে সুমির মৃত্যু হয়।

কেশবপুর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত ডাক্তার বলেন, জরুরী বিভাগে আনার আগেই সুমির মৃত্যু হয়েছে।

You May Also Like